রূপসাগরে ডুব দিয়েছি

অরূপ রতন আশা করি;

ঘাটে ঘাটে ঘুরব না আর

ভাসিয়ে আমার জীর্ণ তরী।

সময় যেন হয় রে এবার

ঢেউ খাওয়া সব চুকিয়ে দেবার,

সুধায় এবার তলিয়ে গিয়ে

অমর হয়ে রব মরি।

 

যে গান কানে যায় না শোনা

সে গান সেথায় নিত্য বাজে,

প্রাণের বীণা নিয়ে যাব

সেই অতলের সভামাঝে।

চিরদিনের সুরটি বেঁধে

শেষ গানে তার কান্না কেঁদে,

নীরব যিনি তাঁহার পায়ে

নীরব বীণা দিব ধরি।

 

 

  শান্তিনিকেতন, ১২ পৌষ, ১৩১৬
Advertisements